মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

জেলা প্রশাসকের বার্তা

 

জন্মসূত্রে দক্ষিণের, মানে জীবনানন্দের কাছাকাছি এলাকার মানুষ আমি। আর প্রথমবারের মতো জেলা  প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করতে এলাম বনলতা সেনের নাটোরে। সম্ভবত ঘটনাটি নেহাতই কাকতালীয়। গত ১৫ সেপ্টেম্বর জেলার বাসিন্দাদের প্রধান সরকারি সেবক হিসেবে স্থানীয় জনপ্রশাসনের দায়িত্ব গ্রহণ করেছি।
এখানে এসে টের পেয়েছি, সময়ের মতোই সুপ্রাচীন এক ঘ্রাণ আছে এই জনপদের। মন আনচান করা শৈশবে শোনা শত গল্পে কিলবিল করা চলন বিল আর রাণী ভবানীই শুধু নয়; বাংলার লোকসংস্কৃতির অমূল্য সম্পদ মাদার গান, পদ্মপুরাণ আর ভাসান গানের এলাকা এই নাটোর, সেই সুদূরামল থেকে ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে নিভৃতে বাড়াচ্ছে বয়স; আর প্রতিনিয়ত অবদান রেখে চলেছে নানা ভাবে, বাংলার উন্নয়নে। এ জনপদের কৃতি সন্তানদের নাম বলতে শুরু করলে শেষ হবে না। এমন একটি জেলার সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করার সুযোগ পেয়ে নিঃসন্দেহে আমি বর্তমান সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞ।

নাটোর প্রশাসনের পুরানো কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের যে দায়িত্ব সচেতনতা ও সহযোগী মনোভাবের পরিচয় গত ১৫ দিনে পেয়েছি তাতে সরকার ঘোষিত আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন কর্মসূচীগুলো বাস্তবায়নের পাশাপাশি সর্বোচ্চ সুশাসন নিশ্চিতের ব্যাপারে আমি খুব আশাবাদী। বিশেষত মাননীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম শিমুল, মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব মোঃ আবুল কালাম এবং মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব মোঃ আব্দুল কুদ্দুসের আন্তরিকতা আমাকে সাহস জুগিয়েছে। আর মনোবল দিয়েছে নাটোরবাসীর ঐতিহাসিক সংগ্রাম আর সৌহার্দ্যের ঐতিহ্য।
প্রিয় নাটোরবাসী, আপনার যে কোনো সমস্যার কথা প্রয়োজনে সরাসরি জানান। মনে রাখবেন, প্রশাসন তথা সরকার ২৪ ঘন্টা আপনার পাশে আছে। আপনিও আমাদের পাশে থাকুন। রাষ্ট্রবিরোধী কাজে জড়াবেন না। অন্যদেরও এমন কাজে নিরুৎসাহিত করুন।